posnews.xyz

লাইফ সত্যিই unfair

আপনার জন্ম কোনো বড় এক ব্যাবসায়ীর ঘরে হলে চাকরি নিয়ে কোনো চিন্তা করতে হত না। অথচ কোন পরিবারে জন্ম গ্রহন করবেন সেটা আপনি বেছে নেন নাই।

আপনার জন্ম বাংলাদেশে না হয়ে মক্কা মদিনাতে হলে এক রকায়াত নামাজ পড়ে এক লক্ষ/ পঞ্চাশ হাজার রাকাআত নামাজের নেকী পেতে পারতেন। অথচ জন্ম স্থানের উপর আপনার কোনো হাত নেই।

পরিবারের বড় সন্তান হওয়ায় দায়িত্ব নিতে হচ্ছে আপনাকে, বয়স হলেও বিয়েটাই করতে পারছেন না। অথচ, ছোট ভাইদের এই ব্যাপারে কোনো চিন্তাই নাই। অথচ, আপনি কত তম সন্তান হবেন সেটা আপনি বেছে নেন নাই।

আপনার গ্রামের এক চাচা সারা জীবন সুদ খেয়ে বৃদ্ধ বয়সে তাওবা করে ভাল হয়ে হজ করে মারা গেল, অথচ আপনি পর্ণ দেখার সময় মৃত্যুর ফেরেশতা চলে আসছে। এখানেও লাইফ টা unfair. 

Read more: ইলেকট্রিকাল ইঞ্জিনিয়ারিং Was a Lie
অলস ব্যাক্তিরাই নিয়মের উপর নির্ভরশীল

আবার দেখুন, আপনার জন্মদিনে ৮০০ টাকা দিয়ে যে কেকটা কেনো হয়েছিল সেটা শুধু আপনার & আপনার বন্ধুদের মুখ & মাথায় লাগলো, খাওয়া আর হল না। কিন্তু এইদিকে প্রতি ২৪ ঘণ্টায় প্রায় ২০ হাজার মানুষ না খেয়েই মারা যাচ্ছে। লাইফ এখানেও fair না। 

গরমের দিনে আপনার গোছল করতে ৪/৫ বালতি পানি লাগে, ঝর্না ছাড়া গোছল ই জমে না। অথচ, আফ্রিকার লক্ষ লক্ষ মানুষ প্রতিদিন ৪/৫ ঘণ্টা ব্যায় করে খাওয়ার পানি নিয়ে আসে।

মোবাইল নিয়ে একটু বেশি সময় কাটান বলে আপনার বাবা আপনাকে আজ বেশ ঝাড়ি দিছে, চিন্তা করছেন বাড়িতেই আর থাকবো না, যা হবে হোক। অথচ আপনার বেস্ট ফ্রেন্ড এর বাবাই নাই (মারা গেছে) আরেক ফ্রেন্ড তো বাবা সম্পর্কে কথা উঠলেই কথা ঘুরিয়ে ফেলে, অন্যদিকে নিয়ে যায়। কেননা তার জন্ম যে একটা খারাপ জায়গায়, তার বাবা কে সেটা তার মাও জানে না।
লাইফ এখানেও unfair

এইসব unfair ই আমাদের মেনে নিতে হয়। আমাদের আর কোনো অপশন নেই এখানে। তবে এই সব unfair কেনো fair হলো, সৃষ্টি কর্তা কেন এগুলো এভাবেই বানালেন, সেটা মৃত্যু পরবর্তী সময়ে জানা যাবে হয়তো। এখন আপাতত, কোরআনের প্রথম সূরা “সূরা ফাতিহা” এর ২ নাম্বার আয়াত “সমস্ত প্রশংসা আল্লাহর জন্য” এটা বলি। কেননা তিনিই জানেন কেন তিনি এই unfair গুলো দিয়ে সুন্দর সামঞ্জস্যপূর্ণ এই পৃথিবী টা এত সুন্দর আর আকর্ষণীয় করে তুলেছেন। এতই আকর্ষণীয় যে, কেউই ছেড়ে যেতে চায় না, থাকতে চায় হাজার বছর। আফ্রিকার সেই কিশোর যে ৬ ঘণ্টা ব্যায় করে পানি আনার জন্য সে বেঁচে থাকতে চায় আবার সুশান্ত সিং এর মত কোটিপতি বেচেঁ থাকতে চেয়েও আত্মহত্যা করে। সবই unfair. 

Follow us on Facebook. 

 

Leave a Reply

Positivity
%d bloggers like this: